কোন মা তার সন্তানকে খাবারের বিষয়ে না

0
29

কোন মা তার সন্তানকে খাবারের বিষয়ে না, করবে এটা মানতে কষ্টই হচ্ছে আমার। বললাম, ঠিকাছে।তুমি ঘুমিয়ে পড়ো। আগামীকাল আমি নুডুলস রান্না করে নিয়ে আসবোনে। ঠিকই পরের দিন নুডুলস রান্না করে নিয়ে গেলাম। -জানো স্পৃহা,দোকানে অনেক সুন্দর এক ধরণের শার্ট আসছে। টাকা থাকলে কিনতে পারতাম। -দাম কত? -৬০০ টাকা। দিলাম ৬০০ টাকা বের করে।

কিনে নিও, আসি আমি। রাতে আব্বু ফোন দিয়েছে বিদেশ থেকে। কথা বলছি আব্বুর সাথে। এদিকে অপূর্ব বার বার মিসডকল দিচ্ছে। জীবনে ফোন পর্যন্ত দেয় নাই আমাকে। মিসড কল দিলে আমি ব্যাক করি। তো আব্বুর সাথে কথা শেষে কল ব্যাক করলাম। -কার সাথে কথা বলছিলি? -আব্বুর সাথে। -সত্যি করে বল। -বললাম না আব্বুর সাথে। -ওহ তাহলে তোর বাপেরে নিয়াই থাক।আমারে আর ফোন দিস না।

আরো কয়েক টা বাজে বকা দিলো ও আমার আব্বুকে তুলে। আমাকে আব্বুর সাথে জড়িয়ে। -তুই এত্ত খারাপ কথা বলতে পারলি আমাকে? তাও আবার আমার জন্মদাতাকে নিয়ে? -১০০ বার বলবো। কি করবি তুই? আমি সেদিনই প্রথম অপূর্বের জঘন্য রুপ দেখতে পাই। যে কিনা একটা মেয়েকে তার বাবার সাথে জড়িয়ে বাজে কথা বলতে পারে। তার মন কতটা নিচ তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। –

আমি আর তোমার সাথে রিলেশন কন্টিনিউ করতে চাইনা অপূর্ব। সব কিছু আজ এখানেই শেষ। আমি সব মানতে পারবো। কিন্তু কেউ আমার বাবাকে গালি দিবে। বা বাবাকে জড়িয়ে এত জঘন্য মন্তব্য করবে। সেটা আমি মানতে পারবোনা। সো এখানেই সব কিছু শেষ আজ আমাদের। -হা হা হা। সব কিছু শেষ তা না হয় বুঝলাম। কিন্তু তোর কত গুলো উলঙ্গ পিক যে আমার কাছে আছে। সেগুলো কি করবো আমি?

আর ভিডিও টা? আমার হাত পা কাঁপতে শুরু করলো অপূর্বের কথা শুনে। -এসব কি বলছো তুমি? -যা বলছি ঠিকই বলছি। তুই কি ভুলে গেলি সেদিনের কথা? নাকি আমি আবার মনে করিয়ে দেবো? আমি চুপ হয়ে গেলাম। আর ভাবতে লাগলাম সেই দিন টার কথা, যেই দিন টায় আমি আমার সব কিছু হারিয়ে ছিলাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here